স্বাগতম :
আজ: বুধবার, মে ২৫, ২০১৬
শঙ্কামুক্ত নন হায়াৎ আইভী ডিএনসিসি উপনির্বাচন: ৩ মাসের জন্য স্থগিত বাগদাদে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরন অতিরিক্ত ডিআইজি পদমর্যাদায় রদবদল অতিরিক্ত সচিব ও যুগ্ম সচিব পর্যায়ে রদবদল নাখালপাড়ায় জঙ্গি অভিযান: নিহত ৩ দেশ কেন মাদক থেকে মুক্ত হতে পারছে না? মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়কের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস নির্মল সেনের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত পুলিশ সপ্তাহ শুরু

বাড়ছে ‘নীরব হার্ট’ অ্যাটাকের ঘটনা

এসবিডি নিউজ24 ডট কম,ডেস্কঃ পুরো বিশ্বের যত হার্ট অ্যাটাকের ঘটনা ঘটে তার প্রায় অর্ধেকই ‘নীরবে’ ঘটে। আর এই ধরনের হার্ট অ্যাটাক অধিকাংশই প্রাণঘাতী হয়। নতুন এক গবেষণায় গবেষকরা এই বিষয়ে সতর্ক করেছেন। এই ধরনের হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হলে অধিকাংশ মানুষ বুঝতে পারে না। বিশেষ করে নারীদের জন্য এটি বিপজ্জনক। বদহজম, পেশি টান এবং ফ্লুজনিত সমস্যায় বারবার বিভ্রান্তি তৈরি হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনার গবেষকেরা বলেছেন, নীরব হার্ট অ্যাটাক স্ট্যান্ডার্ড হার্ট অ্যাটাকের মতোই সাধারণ। যার কারণে প্রতি বছর হাজারে অন্তত একশ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়। নারীদের মধ্যে যারা নীরব হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের ৫০ শতাংশের বেশি গত এক দশকে মারা গেছেন। আর পুরুষদের ক্ষেত্রে এর ঝুঁকির পরিমাণ বেড়েছে এক চতুর্থাংশ।

হৃদপিণ্ডে রক্ত সরবরাহ ব্লক হয়ে গেলে স্বাভাবিক হার্ট অ্যাটাকের মতো এই ধরনের হার্ট অ্যাটাক হয়। যা মারাত্মক ক্ষতি ও ভয়ের কারণ। কিন্তু অনেক রোগীর ক্ষেত্রে কোনো ধরনের লক্ষণই দেখা যায় না। ভুলভাবে অনুমান করা হয় তাদের বদহজম, ফ্লু বা পেশিতে টান রয়েছে। এসব ক্ষেত্রে অধিকাংশ রোগীই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন না। ফলে পরবর্তী সময়ে ভয়ানক হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ওষুধ বা অস্ত্রোপচার করা হয় না।

গবেষক এবং অন্যান্য বিশেষজ্ঞদের মতে, সাধারণ মানুষদের ‘নীরব হার্ট অ্যাটাক’ এর বিষয়ে আরও বেশি সচেতন হওয়া উচিত। সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, অনেকের বিষয়টি অগোচরেই থেকে যাচ্ছে। হৃদরোগ বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বড় প্রাণঘাতী একটি রোগ। বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন, এ ক্ষেত্রে বেশিরভাগ রোগীর মৃত্যু ঘটনা ঘটে পূর্বে যাদের হার্ট অ্যাটাকের ঘটনা ঘটেছিল। কিন্তু তারা তখন বুঝতে পারেননি। নর্থ ক্যারোলিনার ওয়েক ফরেস্ট স্কুল অব মেডিসিনের গবেষক ডা. জু মিং জাং এবং অন্যান্য গবেষকরা নয় হাজার ৪৯৮ জন মধ্য বয়সী নারী-পুরুষের তথ্য বিশ্লেষণ করেন। গবেষণা ফলাফলে দেখা যায়, দশ বছরের অধিক সময়ের মধ্যে ৭.৪ শতাংশ হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হয়েছেন। তারমধ্যে ৪৫ শতাংশের ক্ষেত্রে নীরব হার্ট অ্যাটাকের ঘটনা ঘটেছে। কোনো ধরনের লক্ষণ না থাকা সত্ত্বেও এই ধরনের হার্ট অ্যাটাক চিহ্নিত করা হয়েছে। স্ক্যানের মাধ্যমে হৃদপিণ্ডের ক্ষতি ধরা পড়েছে।

প্রাসঙ্গিক সংবাদঃ

  • এক বছরে রেলে ৩৫ দুর্ঘটনা ও ১২৯ টি নাশকতার ঘটনা
  • জটিল রোগ এড়াতে ‘ঘুম’ এর বিকল্প নেই
  • মদ্যপান করে রাজধানীর সূত্রাপুরে ছাত্রলীগের সভাপতিসহ ৮ জন অসুস্থঃ ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা
  • ঈদকে সামনে রেখে বাড়ছে অপরাধ কর্মকাণ্ড ।। পুলিশ নীরব!
  • পুলিশের সামনে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে